BlogNewsRangpurRangpur bdআমাদের রংপুরগঙ্গাচড়া

গমের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রংপুরের গঙ্গাচড়ায়

গমের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রংপুরের গঙ্গাচড়ায়

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় ৯ টি ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রামে চলতি মৌসুমে আধুনিক উন্নতজাতের গমচাষ হয়েছে। কম খরচ ও স্বল্প পরিশ্রমে গতবছর অধিক ফলন ও ভাল দাম পাওয়ায় এ অঞ্চলের চাষীরা এবার আগ্রহী হয়েছেন গম চাষে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বাম্পার ফলনের আশায় রয়েছেন চাষীরা। উপজেলার কোলকোন্দ ইউনিয়নের চাষী খরকু (৫০), প্রভাত (৬০)সহ অনেকে জানান, গম আবাদ লাভজনক। এছাড়া গম কেটে আগাম পাট চাষ করা যায়। তারা আরো জানায় গম চাষে বিঘা প্রতি খরচ হয় ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা। ভালো ফলন হলে প্রতি বিঘায় (২৭ শতক হিসেবে) গড়ে ১০ থেকে ১১ মন গম উৎপাদন হয়। বিঘা প্রতি উৎপাদিত গম বিক্রি হয় ৯ থেকে ১০ হাজার টাকা। গত বছর লাভ হওয়ায় এ বছরও গম চাষ করেছি। আলমবিদিতর ইউনিয়নের চাষী আনিছুর (৪৫), নজরুল (৩৫) জানান, গম চাষের সময় যে কীটনাশক ব্যবহার করা হয় তাতে আগাছাসহ পোকামাকড় মারা যায় ফলে গম তোলার পর ধানের ফলন ভাল হয়। উপজেলার কোলকোন্দ ইউনিয়নের দক্ষিণ কোলকোন্দ বøকের উপসহকারি কৃষিকর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম বলেন, গম চাষ লাভজনক ৩-৪ টি সেচ দিয়ে গমের আবাদ করা যায়। তাই গম চাষে খরচ কম হয়। মৌসুমের শুরু থেকে আবহাওয়া অনুকূলে থাকার কারণে গমের রোগ বালাই কম মনে হচ্ছে। তাই ফলন ভাল হওয়ার আশা করছি।

উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানান, উন্নতজাতের বীজে ফলন ভাল হয় এজন্য কৃষকদের সরকারি প্রণোদনার আওতায় উন্নত জাতের গম বীজ ও সার দেয়া হয়েছে। উপজেলা কৃষি বিভাগ নিয়মিত মাঠ পর্যায়ে চাষীদের লাগানো গম ক্ষেতসহ অন্যান্য ফসল তদারকি করছে।

সুত্রঃ গংগাচড়া নিউজ

Related Articles

Leave a Reply

Close